Ultimate magazine theme for WordPress.

ইন্টারনেট ব্যবহার করা উচিত দিনে দু্ই ঘণ্টা সপ্তাহে পাঁচ দিন!

687

বেশি সময় ধরে ইন্টারনেট ব্যবহার করলে বেড়ে যায় রক্তচাপ। এ থেকে মুক্তির উপায় হতে পারে প্রতিদিন দুই ঘণ্টা করে সপ্তাহে পাঁচ দিন ইন্টারনেট ব্যবহার করা। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকেরা এই পরামর্শ দিয়েছেন। গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব কিশোর-কিশোরী ঘণ্টার পর ঘণ্টা ইন্টারনেটে সময় কাটায় তাদের ওজন বেড়ে যাওয়ার ও উচ্চ রক্তচাপে ভোগার ঝুঁকি তৈরি হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ডেট্রয়েটের হেনরি ফোর্ড হাসপাতালের গবেষকেরা জানিয়েছেন, যেসব কিশোর-কিশোরী সপ্তাহে ১৪ ঘণ্টার বেশি ইন্টারনেটে সময় কাটায় তাদের রক্তচাপ বাড়তে দেখা যায়। গবেষণা নিবন্ধটির প্রধান লেখক অ্যান্ড্রেয়া ক্যাসিডি-বুশরো বলেন, ‘ইন্টারনেট ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হলেও এটা যেন আমাদের গ্রাস করে না ফেলে।’ গবেষণায় দেখা গেছে, কিশোর-কিশোরীরা সপ্তাহে ২৫ ঘণ্টারও বেশি ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকে। গবেষণার জন্য ১৪ থেকে ১৭ বছর বয়সী ৩৩৫ জন কিশোর-কিশোরীর ওপর এ গবেষণা চালানো হয়। তাদের শারীরিক পরীক্ষার পাশাপাশি ইন্টারনেট-সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে বলা হয়। ‘স্কুল নার্সিং’ নামক সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে গবেষণাসংক্রান্ত নিবন্ধটি। গবেষণায় যে ১৩৪ জন কিশোর-কিশোরী অতিরিক্ত সময় ইন্টারনেট ব্যবহার করেছে, তাদের মধ্যে ২৬ জনের রক্তচাপ বাড়তে দেখা গেছে। অতিরিক্ত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মধ্যে ৪৩ শতাংশের ওজন বেশি বলে গবেষণায় দেখা গেছে। কম্পিউটার বা স্মার্টফোনে কাজের ফাঁকে নিয়মিত বিরতি নিতে পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকেরা। এ ছাড়াও ইন্টারনেট ব্যবহারের পাশাপাশি সময় পেলে কিছুটা শারীরিক ব্যায়াম করে নেওয়ার প্রয়োজন। গবেষক ক্যাসিডি বলেন, ‘অভিভাবকদের কাছে আমার পরামর্শ হচ্ছে, শিশুদের জন্য ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় যেন তাঁরা নির্ধারণ করে দেন। দিনে বড়জোর দুই ঘণ্টা এবং সপ্তাহে পাঁচ দিন—এই নিয়মটি অনুসরণ করা যেতে পারে।’ সূত্র: আইএএনএস।

Leave A Reply

Your email address will not be published.