Ultimate magazine theme for WordPress.

গাইবান্ধা কুপতলা প্রতিপক্ষের আঘাতে গৃহবধু গুরুতর আহত

391

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা : গাইবান্ধা সদরের কুপতলা ইউনিয়নের নাগরাজ এলাকায় প্রতিপক্ষের আঘাতে গুরুত্বর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এক গৃহবধু। এ ঘটনায় একই গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র বাবলু মিয়াকে ১ নং আসামী করে গাইবান্ধা সদর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন গুরুত্বর আহত গৃহবধুর স্বামী লুৎফর রহমান।
থানায় লিখিত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, কুপতলার নাগরাজ এলাকার আবুল হোসেনের পুত্র বাবলু মিয়া, মৃত. আজিজুল হকের পুত্র রফিকুল ইসলাম, রফিকুল ইসলামের পুত্র আল আমিন, মৃত. তৈমুদ্দিনের পুত্র আবুল হোসেন, মৃত. কানচিয়ার পুত্র ইনতাজ আলী, বাবলু মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ বকুল বেগম, আবুল হোসেনের স্ত্রী লাইলী বেগম, রফিকুল ইসলামের স্ত্রী আফরোজা বেগম গত ৯ ডিসেম্বর/১৮ ইং দুপুরে লাঠি ছোড়া, লোহার রড, সাবল ইত্যাদি নিয়ে স্বদলবলে একই গ্রামের মোঃ তালেব উদ্দিনের পুত্র লুৎফর রহমানের বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর, দরজা ভাংচুর করে। এ সময় লুৎফর রহমানের স্ত্রী লুৎফুন্নেছা বেগম বাধা দিলে ধারালো ছুরি দিয়ে তার মাথায় চোট মেরে গুরুত্বও রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় লুৎফর রহমান ও তার ছেলে নুরুন্নবী মিয়াকেও আসামীরা মারধর করে এবং গলাটিপে হত্যা চেষ্টা চালায়। শুধু তাই নয়, আসামীরা ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর, নগদ ১ লক্ষ টাকা এবং ১ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। বর্তমানে ঐ গৃহবধু লুৎফুন্নেছা বেগম গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় লুৎফর রহমান বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় একটি এজাহার করেছেন। তিনি বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আসামীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ চেয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.