Ultimate magazine theme for WordPress.

গোবিন্দগঞ্জে স্বামীর নির্যাতনের বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলণ

102

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে স্বামীর পরিবারের লোকজনের নির্যাতনে থানায় মামলা দায়ের করে বিপাকে পড়েছেন স্ত্রী রুমা আকতার (৩১), মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলণ। ২৩ সেপ্টেম্বর গোবিন্দগঞ্জ সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশন কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১১ টায় মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের মৃত-আব্দুর রশিদ মৃধার মেয়ে রুমা আকতার এ সংবাদ সম্মেলণে লিখিত বক্তব্যে বলেন ২০০৯ সালে বগুড়া সারিয়াকান্দি জোড়গাছা সোনাপুর গ্রামের মৃত-আব্দুল লতিফ এর ছেলে হাফেজ আব্দুল মান্নান এর সহিত বিবাহ হয়। সেখানে ঘর সংসার করাকালে ২ টি সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। স্বামীর সংসার করাকালে তার গ্রাম সম্পর্কে ফুফাতো ভাই ছায়েদ বাদশা (৩৮), মোবাইল ফোনে ফুসলাইয়া বিবাহের প্রলোভন দিয়ে পূর্বের স্বামীর ভাত ভাংগাইয়া গত ২০১৭ সালে তাকে দ্বিতীয় বিবাহ করে ঘরে তোলে। এরপর ২য় স্বামী ছায়েদ বাদশা সহ পরিবারের সকলে যোগসাজসে ৩ লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে মারপিট, জ্বালা-যন্ত্রনা ও বিভিন্ন ভাবে শারিরীক, মানষিক নির্যাতন করতে থাকে। স্বামীর সংসার করার লক্ষে রুমা আকতার সকল নির্যাতন নিরবে সহ্য করে এবং গর্ভবতী হইয়া আড়াই মাস পূর্বে মহিমাগঞ্জ বন্দরে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশিদের বাসা ভাড়া নিয়া ঘর সংসার করা কালে গত ৩১ আগষ্ঠ বিকেল অনুমান ৫ ঘটিকার সময় ছায়েদ বাদশা, সুলতানা বেগম, হামিদা বেগম, তানজিনা বেগম, পূর্ব যোগসাজসে ভাড়া বাসা থেকে ডেকে নিয়ে এসে গ্রামের বাড়ী গোপালপুরে উল্লেখিত মামলার আসামীগণের বসতবাড়ীর ভিতর আঙ্গিনায় ৩ লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে মারপিট করে। এতে গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। এ ঘটনায় তাদের নামে রুমা আকতার বাদী হয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৩২, তারিখ-১৬ সেপ্টেম্বর/২০। তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন, এ মামলা হওয়ার পর থেকেই তারা মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে। তিনি দ্রুত এ মামলার সকল আসামীকে গ্রেফতারে পুলিশ প্রশাসনের সংশ্লিষ্ঠ কর্তপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com