Ultimate magazine theme for WordPress.

ছুরিকাঘাতে বগুড়ার সদর থানা বিএনপির সাধারনসম্পাদক মাহবুব আলম শাহীন খুন।

514

বগুড়ায় সদর থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এ্যাডঃ মাহবুব আলম শাহীন (৪৫) সন্ত্রাসীদের উপুর্যুপরি ছুরি আঘাতে খুন হয়েছেন!  ঘটনাটি ঘটেছে রবিরার রাতে বগুড়া শহরের অভিজাত এলাকায় উপশহরে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে , রবিবার রাত ১০টার দিকে বিএনপি নেতা এ্যাডঃ মাহবুব আলম শাহীন শহরের উপশহর বাজার এলাকায় দাঁড়ানো অবস্থায় সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হন । এসময় ৮/৯জন সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা সঙ্গবদ্ধ ভাবে হামলা চালায় তার শরীরের বিভিন্ন অংশে ও দু’পায়ে উপূর্যুপরি ভাবে ছুরিকাঘাত এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময় তাকে মৃত ভেবে হামলা কারীরা  ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তার নরাচরা টের পেয়ে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।এ বিষয়টি নিশ্চিত করে স্থানীয় ছিলিমপুর ফাঁড়ী পুলিশের এস আই আব্দুল আজিজ মন্ডল।এ্যাডঃ মাহবুব আলম শাহীনের মৃত্যু নিশ্চিত করে জানান, প্রথমে আহত অবস্থায় তাহাকে স্থানীয় স্বদেশ হাসপাতালে এবং সেখান থেকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । সেখানেই কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
অন্যদিকে উপশহর ফাঁড়ী পুলিশের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শফিকুল ইসলাম মোবাইল ফোনে জানান, এ্যাডঃ মাহবুব আলম শাহীন তার ধরমপুর বাড়ী ফেরার পথে উপশহর বাজার এলাকার একটি ১০তলা ভবনের সামনের চা দোকানে দাঁড়ানো অবস্থায় এ্যাডঃ মাহবুব আলম শাহীন সশস্ত্র হামালার শিকার হন। এসময় সন্ত্রাসীরা তার শরীরের বিভিন্ন অংশ এবং দু’পায়ে উপুর্যুপরিভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে পালিযে যায় । পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। কি কারনে এবং কারা এ হত্যাকান্ডের সাথে জরিত এ বিষয়টি স্পষ্ট করে জানাতে পারেননি এই পুলিশ কর্মকর্তা ।
রাত ১২ টায় এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত নিহতের লাশ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। শেষ খবর পর্যন্ত হত্যাকান্ডের সাথে জরিতদের ধরতে জেলা পুলিশ অভিযান শুরু করেছেন বলেও তিনি জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.