Ultimate magazine theme for WordPress.

জবানবন্দী দিয়েছে পুলিশ ও ডাক্তারের কাছে বগুড়ার মহাস্থানে কলাক্ষেত থেকে উদ্ধার গলাকাটা মিনি।

যৌতুক না দেয়ায় স্বামীই তাকে হত্যা করতে চেয়েছে।

492

জবানবন্দী দিয়েছে পুলিশ ও ডাক্তারের কাছে বগুড়ার মহাস্থানে কলাক্ষেত থেকে উদ্ধার গলাকাটা মিনি।
—————————————————————-
যৌতুক না দেয়ায় স্বামীই তাকে
হত্যা করতে চেয়েছে।

নুরনবী রহমান বগুড়া থেকেঃ বগুড়ার মহাস্থানের জাদুঘরের পূর্বপার্শ্বে একটি কলাক্ষেত থেকে দূবুর্ত্তরা গলাকেটে মিনি নামে এক নারীকে হত্যার চেষ্টা,আহত রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল(শজিমেকে) হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ।
ঘটনাটি ঘটেছে, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মহাস্থানের জাদুঘরের পাশে করতোয়া নদীর তীরে অনন্তবালা দক্ষিনপাড়া গ্রামের মাঠের একটি কলাক্ষেতে। আহত নারী মোকাতলা ইউনিয়নের আমজানী কুড়িপাড়া গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের মেয়ে মিনি আক্তার (২৫) বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানান, বুধবার (১আগস্ট) সকাল অনুমান সাড়ে ৬টায় কৃষকেরা মাঠে কাজ করতে গিয়ে কলাবাগানে ওই নারীর গলাকাটা রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখে রায়নগর ইউপির ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য শাহিনুর রহমান শাহীনকে জানান, ইউপি সদস্য শাহীন তাৎক্ষণিক শিবগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করলে থানার এস আই আবু সাঈদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ওই নারীকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শজিমেক) পাঠান।
আহত মিনা আক্তারের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,
গত ৫/৬ বছর পূর্বে গাবতলী উপজেলার পাঁচ পাইকা গ্রামের মোঃ জাকিরুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানার সাথে মিনার বিয়ে দেন। তার সংসারে ৪ বছরের একটি ছেলে রয়েছে।
ঘটনার ৩দিন পূর্বে সোহেল তার শশুড়বাড়ি থেকে তার সন্তানকে রেখে স্ত্রীকে নিয়ে মহাস্থান এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকবেন বলে নিয়ে আসেন।তারপর থেকে মেয়েকে কোথায় রেখেছে তার শশুড়বাড়ীর লোকজন জানেনা। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী সোহেল রানা পলাতক রয়েছে।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাহিদ মাহমুদ খানের সাথে কথা বললে, তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,সংবাদ পেয়ে আমরা আহত অবস্থায় গলায় ও মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে গুরুত্বর আঘাত প্রাপ্ত ওই নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দেওয়া হয়। সে সুস্থ্য হয়ে কিছু না বলা পর্যন্ত কোন তথ্য আমাদের কাছে নেই। এদিকে শিবগঞ্জ থানা ইন্সপেক্টর অপারেশন জাহিদ হোসেন জানান, মহিলা টি জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। সে পুলিশ ও ডাক্তার কে বলেছে যৌতুক না দেওয়ার জন্য তার স্বামী তাকে হত্যা করার জন্য কলার বাগানে জবাই করে।
তবে তার স্বামী সোহেল রানাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.