Ultimate magazine theme for WordPress.

টাঙ্গাইলের সখীপুর থেকে তিন হাজার ইয়াবা বড়িসহ আওয়ামী লীগের এক নেতা ও তাঁর স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

431

সখীপুর, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের সখীপুর থেকে তিন হাজার ইয়াবা বড়িসহ আওয়ামী লীগের এক নেতা ও তাঁর স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই নেতা বলছেন, তিনি নন, মূলত তাঁর স্ত্রী মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে সখীপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভাড়া বাসা থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আওয়ামী লীগের ওই নেতার নাম ফজলুর রহমান (৫০)। তিনি বাসাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক। তাঁর স্ত্রীর নাম রালিমা শিখা (৪০)। সখীপুর থানার পুলিশ রালিমা শিখার কাছ থেকে তিন হাজার ইয়াবা জব্দ করে। দুপুরের দিকে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামছুল হক ওই দম্পতিকে আসামি করে মামলা করেন।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রালিমা শিখা গতকাল মঙ্গলবার সকালে কক্সবাজার থেকে ইয়াবার একটি চালান নিয়ে বাসে ওঠেন। রাতে ঢাকায় নামেন। সেখান থেকে আজ সকালে সখীপুরে আসেন। সখীপুরের ওই বাসার ফটকের সামনে থেকে রালিমাকে আটক করা হয়। এ সময় তাঁর দেহ তল্লাশি করে তিন হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। পরে বাসায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ফজলুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে।
ফজলুর রহমান থানা হাজতে বলেন, ‘আমার দ্বিতীয় স্ত্রী রালিমা শিখা মাদক ব্যবসায়ী। তাঁকে এ ব্যবসা থেকে ফেরানোর অনেক চেষ্টা করেছি, আমি আজ বিনা দোষে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হলাম।’
বাসাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী অলিদ ইসলাম ফজলুর রহমানের রাজনৈতিক পরিচয় নিশ্চিত করেন পুলিশ।
সখীপুর থানার  (ওসি) এস এম তুহীন আলী জানান আদালতে হাজির করে এই স্বামী স্ত্রীর বীরুদ্ধে  রিমান্ড চাওয়া হলে তাদের দুজনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.