Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার গাবতলীতে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ধষর্ণের অভিযোগে স্কুল শিক্ষক গ্রেফতার

321

মুহাম্মাদ আবু মুসাঃ বগুড়ার গাবতলীতে ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সাইফুর রেজা হিরু (৪৮) নামের এক সহকারী শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের তেলিহাটা মধ্যপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্থানীয় জনতার নিকট প্রায় ৩ঘন্টা অবরুদ্ধ থাকার পর পুলিশ গিয়ে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। স্কুল ছাত্রীকে কৌশলে ধর্ষণ করার ঘটনায় স্থানীয় অভিভাবকরা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ দিলে গতকাল বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি সভা আহবান করে। সভার শুরুতেই কিছু অভিভাবক কথা বলতেই আস্তে আস্তে বহু লোকের সমগম ঘটে। এর এক পর্যায়ে বিদ্যালয়ের অফিসে ওই শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। পরে ঘটনাটি ব্যাপক আকার ধারন করলে থানায় সংবাদ দেয়া হলে পুলিশ এসে শিক্ষক সাইফুর রেজা হিরুকে গ্রেফতার করে এবং ভিকটিমকে থানায় নিয়ে আসা হয়। এছাড়া শিক্ষার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে সার্বিক বিষয় অবগত হন। জানা যায়, ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাইফুর রেজা হিরু গত ৩০জুলাই ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে কৌশলে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। স্কুল থেকে ফিরে ছাত্রী বিষয়টি তার অভিভাবকদের জানায়। এ বিষয়ে ছাত্রীর বাবা-মা স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে নালিশ জানালে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে স্কুলে মিমাংসাকল্পে এক বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠক চলাকালে স্থানীয় জনগণ বিক্ষুব্ধ হয়ে শিক্ষক সাইফুর রেজা হিরুকে স্কুলকক্ষে ৩ঘন্টা আটকে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভিকটিমসহ শিক্ষক হিরুকে আটক করে থানায় আনে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা সালেহা বেগম বাদীনি হয়ে গতকালই নারী-শিশু নির্যাতন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে থানার ওসি সেলিম হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি উপরোক্ত তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক সাইফুর রেজা হিরু জানান, ঘটনাটি সাজানো নাটক এবং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাতে দায়ি করেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.