Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার তিনদীঘিতে আওয়ামী লীগের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

233

 

রায়হান কবির রবিন বগুড়া জেলা ব্যুরো প্রধানঃ আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এবং বিএনপি- জামায়াত থেকে নব্য কিছু হাইব্রিড নেতা আওয়ামী পরিবারে অনুপ্রবেশ করে আওয়ামী পরিবারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার প্রতিবাদে বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলার কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।

গত ৯ই জানুয়ারী ২০২১ইং শনিবার বিকেল ৪টায় কাহালু উপজেলার কালাই ইউনিয়নের তিনদীঘি বাজারে বিশাল এই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ২নং কালাই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জনাব মোঃ শামীম খন্দকার ।

প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ আব্দুল মান্নান।

প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি আব্দুল মান্নান বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক এবং দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার ক্ষুদ্র একজন কর্মী, যে কখনোই আমাদেরকে দেশদ্রোহীতা ও অপকর্মের শিক্ষা দেননি। দেশের প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী এই সংগঠনের গায়ে আমরা কখনোই কালিমা লাগাতে দিবো না।

বিএনপি- জামায়াতের সল্প সংখ্যাক কিছু মানুষ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য আওয়ামী পরিবারে মেশার চেষ্টা করছে। এই সব হাইব্রিড নব্য নেতাদের কখনোই দলে জায়গা দেয়া যাবে না। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমাদের কাজ করতে হবে এবং নেত্রীর প্রত্যেকটি নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করতে হবে।

আব্দুল মান্নান আরো বলেন, সমাজ থেকে এই সব বিএনপি জামায়াত এর চিন্তিত সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যু এবং নানান ধরনের অপকর্মে জড়িতদের সমাজ থেকে অপসারণ করতে হবে।

পরিশেষে তিনি বলেন, আগামী পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের নিরংকুশ বিজয় সুনিশ্চিত করার জন্য আওয়ামী পরিবারের প্রত্যেকটি কর্মীকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে।

প্রতিবাদ সভায় সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে মোঃ শামীম খন্দকার বলেন,
আমি আমার দীর্ঘ ৪৫ বছরের জীবনে সততার সাথে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে যাচ্ছি, দীর্ঘ এই রাজনৈতিক জীবনে অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে আজ আমি এখানে এসে পৌঁছেছি।

অনেক অপশক্তি বিভিন্ন সময়ে আমাকে মিথ্যে, বানোয়াট দোষারোপ করে দমিয়ে রাখতে চেয়েছে কিন্তু কখনোই তারা সফল হতে পারেনি। কারন, আমাদের বুকে লালিত বঙ্গবন্ধুর আদর্শ। সকলেই জানেন আমি আওয়ামী পরিবারের একজন পরিক্ষিত ক্ষুদ্র কর্মী। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে কালাই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করেছিলাম, এবারও আপনাদের মতামত নিয়ে আওয়ামী পরিবার থেকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ।

বিএনপি-জামাত থেকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী কিছু হাইব্রিড নেতা কর্মী আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষাণিত হয়ে আমার ও আওয়ামী পরিবারের বিরুদ্ধে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আমাকে জনগনের কাছে হেয়প্রতিপন্ন করতে ও আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে ফেক ফেসবুক আইডি থেকে নানান ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে, কিন্তু এই সব মিথ্যা ভিত্তিহীন অপপ্রচার চালিয়ে আমাদেরকে দমিয়ে রাখা যাবে না।

দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার এই ভূমিতে আমরা কখনোই সে সব মিথ্যাবাদী, দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাসী, অপপ্রচারকারী, ভূমিদস্যু, রাজাকারদের জায়গা দিবো না।
প্রয়োজনে রক্ত দিবো, তবুও অন্যায়ের কাছে মাথা নোয়াবো না।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী বিএনপি-জামাত থেকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড কতিপয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমাদের সকলকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে সকল অপশক্তিকে রুখে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে হবে। বর্তমান অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড কতিপয় নেতাকর্মী ত্যাগীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অপূরনিয় ক্ষতি করছে । যার ব্যবস্থা অতি দ্রুত গ্রহণ না করলে প্রাচীন এই সংগঠন বড় ধরনের হুমকির মুখে পরতে পারে। পরিশেষে তিনি আগামী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করার ঘোষণা করে দোয়া চান এবং আওয়ামী পরিবারকে এক থেকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার জন্য আহবান জানান।

উক্ত প্রতিবাদ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, কাহালু উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি, পি এম বেলাল হোসেন, কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ আব্দুল হাকিম, ২নং কালাই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আবু তাহের হান্নান, কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি লিটন সরকার, কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন প্রাং সহ কাহালু উপজেলা ও কালাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

এছাড়াও উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন, ইউনিয়ন এর বিভিন্ন ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

সভার সঞ্চালনায় ছিলেন, কালাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক,জনাব মোঃ শহিদুল ইসলাম। সভাপতির সমাপনী বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে দীর্ঘ দুই ঘন্টার প্রতিবাদ সভার পরিসমাপ্তি ঘটে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com