Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার নন্দীগ্রামে মহাসড়কে আট শতাধিক যানবাহনে মামলা

448

বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে ফিটনেস বিহীন আট শতাধিক যানবাহনে মামলা দিয়েছে পুলিশ। মহাসড়কে সিএনজি, ইজিবাইক, নসিমন, অটোভ্যান সহ সব ধরণের থ্রি হুইলার চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে মহাসড়কে থ্রি হুইলার চলাচলের চেষ্টা করলেই পুলিশের ফাঁদে পড়ে আটকের পর মামলা হচ্ছে। কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ কাজল কুমার নন্দী ও সার্জেন্ট আজিজুল ইসলামের নেতৃত্বে হাইওয়ে পুলিশের সদস্যরা মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে চেকপোষ্ট বসিয়ে চলতি আগস্ট মাসের ২৮ তারিখ পর্যন্ত ৭৫০টি যানবাহনে মামলা দিয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে বাস, ট্রাক, পিকআপ, সিএনজি, ইজিবাইক সহ অন্যান্য যানবাহন। শতশত যানবাহন আটক করে কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। এছাড়া থ্রি হুইলার (অটোভ্যান) আটক করে পুলিশ ফাঁড়ির পাশের একটি পুকুরে ফেলে রাখা হচ্ছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে প্রভাবশালীদের মাধ্যমে একাধিকার তদবিরও কাজে আসছে না। কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ কাজল কুমার নন্দী মুঠোফোনে ৭৫০টি যানবাহনে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নন্দীগ্রাম সার্কেল) আনোয়ার হোসেন ও থানার ওসি নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে মহাসড়কে টহল দিচ্ছে পুলিশ। মহাসড়কে থ্রি হুইলার, নসিমন, মোটর সাইকেল সহ বিভিন্ন ফিটনেস বিহীন যানবাহন আটকের পর মামলা দিচ্ছে থানা পুলিশ। চলতি আগস্ট মাসের ২৮ দিনে ১১৭টি যানবাহনে মামলা দিয়েছে। থানার সেকেন্ড অফিসার আলী আকবরের নেতৃত্বে মহাসড়কের নন্দীগ্রাম বাসষ্ট্যান্ডে চেকপোষ্ট দেখা গেছে।

পুলিশ বলছে, মানুষ আইন ভাঙছে। পুলিশও মামলা দিচ্ছেন। মানুষ সচেতন হলে মামলার সংখ্যা কমে আসবে। মামলা দেওয়ার পাশাপাশি সচেতনতা তৈরিতে কাজ করছে পুলিশ। পথচারী ও যানবাহনের চালকদের উদ্দেশে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হচ্ছে। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, মোটরসাইকেলের চালকের হেলমেট থাকলেও আরোহীর হেলমেট নেই। এসব ক্ষেত্রে আরোহীর জন্য হেলমেট রাখতে সতর্ক করার পাশাপাশি মামলা দিচ্ছে পুলিশ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.