Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার মহাস্থান মৌ-বন আবাসিক বোডিংয়ে থানা পুলিশের অভিযান খদ্দের পতিতা সহ আটক-৮

3,578

এস আই সুমনঃ মহাস্থান(বগুড়া)প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জের মহাস্থান মৌ-বন আবাসিকে বোডিংয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযান,খদ্দের পতিতা সহ অনৈতিক কাজের অভিযোগে আটক -৮ ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে প্রত্যকের ৭ দিনের জেল।
জানা গেছে,সোমবার রাতে বগুড়ার মহাস্থান বাসট্যান্ডে অবস্থিত মৌ-বন আবাসিক বোডিংয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স থানার এস আই খোরশেদ সহ পুলিশ সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উল্লেখিত বোডিংয়ে অভিযান চালিয়ে ৪ জন খদ্দের ও ৪ জন পতিতা সহ ৮ জনকে অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ সময় বোডিং এর পরিচালক আতাউর রহমান ও ম্যানেজার কৌশলে পালিয়ে যায়।
আটক কৃতরা হলোঃ
খদ্দের বগুড়ার গাবতলী উপজেলার কাগইল ইউনিয়নের চক কাগইল গ্রামের ফজলুর রহমানের পুত্র শাহজাহান আলী,একই গ্রামের তাজমল প্রাং এর পুত্র তাজুল ইসলাম, একই উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের আব্দুস সামাদের পুত্র শাকিল, শিবগঞ্জ উপজেলার দোগাছিয়া গ্রামের খলিলুর রহমানের পুত্র মিনহাজ উদ্দিন, পতিতা বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ছোট দেড়াহার গ্রামের আব্দুল হান্নানের মেয়ে সানজিদা আক্তার, পটুয়াখালী জেলার কাটাখালী উপজেলার মৃত ছামছুল হক এর মেয়ে সিমা খাতুন, বাঘেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার পরানপুর গ্রামের মোশারফ পাইকারের মেয়ে নিলুফা ইয়াসমিন রিয়া ও সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার পিরান সৈয়দপুরের সুমন আহম্মেদের মেয়ে আনিছা আক্তার।
তাদেরকে মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আলমগীর কবীরের কার্যালয়ে হাজির করলে স্বাক্ষ্য প্রমানাদির ভিত্তিতে প্রত্যকের ৭ দিনের জেল প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য যে,বগুড়ার ঐতিহাসিক মহাস্থান পীরে কামেল হযরত শাহ সুলতান বলখী (রঃ) এর মাযারের পাদদেশে দীর্ঘদিন ধরে এ আবাসিক বোডিংয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে দেহ ব্যবসা চালিযে আসছিল মৌ-বন আবাসিক বোডিং এর পরিচালক আতাউর রহমান। মাঝে মধ্যই শিবগঞ্জ থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অভিযানে পতিতা খদ্দেরকে আটক করা হলেও আবারো পুরোদমে দেহ ব্যবসা চালিয়ে যায়। এলাকার সুশিল সমাজ ও সাধারন
জনগন জানতে চায় বগুড়ার শিবগঞ্জ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্যের অফিসের সামনে এ ধরনের অপকর্ম দীর্ঘদিন ধরে চলছে। কবে বন্ধ হবে এ অপকর্ম? তার খুটির জোর কোথায়? তাই সচেতন মহল স্থানীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সরিফুল ইসলাম জিন্নাহ,উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ রিজু,রায়নগর ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি সহ উদ্ধর্তন পুলিশ প্রশাসনের কাছে জোড় দাবী জানান অতি দ্রুত উল্লেখিত আবাসিক বোডিংয়ে সিলগালা করে বন্ধ করার জন্য আকুল আবেদন জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.