Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার শিবগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

191

 

গোলাম রব্বানী শিপন, স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের আলাদীপুর কাজীপাড়া গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মিথ্যা মামলা দিয়ে নিরীহ লোকদের হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, আলাদীপুর কাজীপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদ কাজীর পুত্র ছানোয়ার হোসেন (৪০) গং এর সাথে একই এলাকার মন্তাজ কাজীর সাথে দীর্ঘ দিন থেকে ১৭শতাংশ কবলা জমির বাশঁঝাড় নিয়ে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে তাদের আদালতে বাটোয়ারা মামলাও রয়েছে। বিরোধ না মিটিয়ে ওই ১৭ শতাংশ জমিতে মন্তাজ কাজী ২৮/৫/২০ইং তারিখে তার লোকজন নিয়ে বিরোধীয় জমির বাঁশ কেটে জমি দখলের চেষ্টা করে। এতে ছানোয়ার পরিবারের লোকজন বাঁধা প্রদান করেন। এসময় তাদের মধ্যে কথার কাটাকাটি সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে মন্তাজ গং বাঁশ কেটে জমি দখল করতে ব্যর্থ হয়ে তার স্ত্রী মলেদা বেগমকে বাদী করে ১। ছানোয়ার হোসেন, (৪০) ২। সুলতান হোসেন, (৩৫) ৩।আহম্মাদ কাজী (২৮), ৪। সোহেল কাজী (২৫) সকলে পিতা, ঠান্ডা মিয়া, ৫। ইব্রাহীম (৩৫) পিতা সামাদ, ৬। সামাদ (৫৫), ৭। ঠান্ডা মিয়া, (৫০) ৮। আতাউর রহমান, সকলের পিতা, সিফাত কাজী, ৯। ইউসুফ কাজী, পিতা নুরুল কাজী। আত্মীয় স্বজন ও দরিদ্র পাড়া প্রতিবেশীসহ মোট ৮ জনকে আসামি করা হয়। আসামিদের অধিকাংশই দরিদ্র। থানা পুলিশের ভয়ে তারা স্বাভাবিকভাকে কাজকর্ম করতে পারছে না। মামলার বিবাদী সানোয়ার গং জানান, মন্তাজ কাজী তার লোকজন নিয়া বিরোধীয় জমির বাশঁ কেটে নিয়ে গেছে। অপরদিকে মন্তাজ কাজী বাঁশ কেটে নেয়ার কথা অস্বীকার করেছেন। সানোয়ার জানান, তাদের নামে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। এ মামলার আসামীরা পালিয়ে থাকায় তাদের পরিবারে রাতে পুলিশি ভয় দেখিয়ে দরজা ও জানালায় বারি দিয়ে শব্দ করে তাদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে বলে তারা জানিয়েছেন। বর্তমান পুরুষ শূণ্য পরিবার গুলো মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
ভুক্তভোগী পরিবার গুলো আরও জানান, জমিজমা নিয়ে তাদের সাথে বিরোধ
কিন্তু কতিপয় ব্যক্তি এই ঘটনা কে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করার জন্য আমাদের পরিবারের লোকজনের উপর মিথ্যা মামলা দায়ের করে অর্থনৈতিক ভাবেও হয়রানী করছে।
তারা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে এ ঘটনাটির সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ন্যায় বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.