Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার শিবগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা লুটপাট থানায় অভিযোগ

351

 

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার বুড়িগঞ্জ ইউনিয়নের পঞ্চদাস (জামতলী) গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৩জন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পঞ্চদাস (জামতলী) গ্রামের মৃত রইচ উদ্দিনের পুত্র রমজান আলী জামতলী বন্দরে মনোহারি ব্যবসায়ী দোকানের আলু পরিবাহনের জন্য শুক্রবার (২২মে) সকাল অনুমান সাড়ে ৯টায় তার ছেলে মুশিকুর রহমান রাব্বী (১০) কে বন্দরে ভাড়ায় চালিতো অটোভ্যান আনার জন্য বলেন। তার ছেলে মুশিকুর রহমান রাব্বী বন্দরে অটোভ্যান ভাড়া করতে গেলে শামসুলের পুত্র বোরহানের সাথে মুশিকুর রহমান রাব্বীর কথার কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বোরহান মুশিকুর রহমান রাব্বীকে চড়-থাপ্পর মারে। এরপর মুশিকুর রহমান রাব্বী বিষয়টি তার বাবাকে গিয়ে বলে। তার বাবা রমজান আলী ছেলেকে অন্যায় ভাবে মারধরের কথা বোরহানের কাছে জানতে চাইলে তাদের মধ্যেও বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের শান্ত করেন। এমতাবস্থায় রমজান আলী তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দোকানদারি শুরু করেন। এদিকে এঘটনার জের ধরে বিবাদী ১। বোরহান উদ্দিন ও ২। মোঃ শামসুল, পিতা- সাপাতুল্লা, ৩। মোছাঃ পলি, স্বামী- বোরহান, ৪। মোছাঃ হাছনা, স্বামী- শামসুল, ৫। মোছাঃ বিলকিস, স্বামী- মোতালেব, সকলের সাং- পঞ্চদাস, থানা- শিবগঞ্জ, জেলা- বগুড়াগণ সহ আরো অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জন সংঘবদ্ধ হয়ে হাতে লাঠি-শোটা, লোহার রড, রাম দা, হাসুয়া, চাকু ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বে-আইনী ভাবে রমজানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অতর্কিত ভাবে হামলা ও লুটপাট চালায়। উক্ত সময়ে ১নং বিবাদীর হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে রমজানের মাথায় আঘাত করলে উক্ত আঘাত তার ডান হাতে লেগে ফোলা বেদনা দায়ক জখম প্রাপ্ত হয়। এ সময়ে ২নং বিবাদী হত্যার উদ্দেশ্যে তার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করে। রমজান কৌশলে ছুটে ২নং বিবাদীর কবল থেকে প্রাণে রক্ষা পায়। স্বামী রমজানকে বাঁচাতে স্ত্রী মন্তেজা বেগম এগিয়ে এলে ১নং বিবাদী তার হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দ্বারা উপর্যুপরী আঘাত করতে থাকে। এক সময় রমজান ও তার স্ত্রী মাটিতে পড়ে গেলে ৩নং বিবাদী তার স্ত্রীর পড়নে থাকা আট আনা ওজনের স্বর্ণের গহনা বর্তমান যার বাজার মূল্য ২৫,০০০/- (পঁচিশ হাজার) টাকা উক্ত ৩নং বিবাদী কু-উদ্দেশ্যে ছিনিয়ে নেয়। উক্ত সময়ে ২নং বিবাদী রমজানের স্ত্রীর পড়নের কাপড় চোপড় ধরে টানা হেচড়া করে বিবস্ত্র করে শ্লীলতা হানি ঘটায়। তারা দোকানের মূল্যবান জিনিস পত্র ভাংচুর করে যাবার সময় ঈদ মার্কেটে দোকানের মালামাল বিক্রির নগদ ১,৬০,০০০/- ( এক লক্ষ ষাট হাজার) টাকা ক্যাশ বাক্স থেকে ১নং বিবাদী নিয়ে চম্পট দেয়। এসময় তাদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে তারা ঘটনাস্থল থেকে লুটপাট করে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে শিবগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দেয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.