Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার শিবগঞ্জে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের সাংবাদিক সম্মেলন

240

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ গতকাল বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সংসারদিঘী ঐতিহাসিক জলমহালের পাড়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে হিন্দু সম্প্রদায়ের পক্ষে বিমল চন্দ্র লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমরা সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়গণ এই মর্মে সাংবাদিক সম্মেলন করিতেছি যে, আমাদের পৈত্রিক সূত্র প্রাপ্ত সদ্য দখলীয় তপশীল বর্ণিত সিএস সম্পত্তি, মৌজা- সংসারদিঘী, দাগ নং- ৬০১, পরিমাণ- ৩১৬০ একর রকম পুকুর, নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশর সরকার পক্ষে জেলা প্রশাসকগং কে বিবাদী করিয়া কোর্টে মামলা মোকদ্দমা পরিচালনা করিয়া আসিতেছি। উক্ত মামলা কোর্টে প্রক্রিয়াধীন আছে বটে। ইহা ছাড়াও ইতিপূর্বে উক্ত সম্পত্তি কেন্দ্রিক কোর্টে আরো বেশ কয়েকটি মামলা/ মোকর্দ্দমা দায়ের হয়েছে বলে আমরা পরবর্তীতে জানতে পারি। যাহার একটি রীট পিটিশন ও সরকারি কার্যক্রমের উপর স্থীতিবস্থার আদেশ মহামান্য হাইকোর্টে এখানো বহাল আছে। 

দুঃখের বিষয় এই যে, মামলা/মোকদ্দর্মা চলমান অবস্থায় সরকার পক্ষে জেলা প্রশাসকগং গত ৬ মার্চ ২০২০ ইং তারিখে আমাদের অজানতে অবৈধ ভাবে ইজারা প্রকাশ করেছে। আমরা কোর্টে এই অবৈধ ইজারার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি মাত্র। এরই মধ্যে ভয়াবহ নোভেল করোনা ভাইরাসের কারণে সরকার সমস্ত অফিস আদালত বন্ধ ঘোষনা করে। ফলে আমরা উক্ত সম্পত্তির দখল ও পোনা মাছ নিয়ে অত্যান্ত ক্ষতির সম্মুখিন হইয়াছি। এরপর সারাদেশে করোনা পরিস্থিতি আরো অবনতি হইলে সরকার হোম কোয়ারেন্টেন্ট, হোম স্ট্রে, লগ ডাউন ঘোষণা করে। এদিকে স্থানিয় সাইফুল ইসলাম নামে ব্যক্তি এলাকার বলাবলি করছে যে, ঐ অবৈধ ইজারা নাকি তার সমিতির অনুকুলে গৃহিত হয়েছে এবং অফিস আদালত বন্ধের মধ্যে দিয়েও ঐ ইজারার চুক্তি পত্রের সমস্ত বন্দবন্ত সম্পাদিত হয়েছে। সে অচিরেই আমাদের পোনা মাছ সহ উক্ত পুকুর দখল করিবে। আমরা সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়গণ সরকারি বৈধ কার্যক্রম কে অবশ্যই সাধুবাদ জানাবো। কিন্তু ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার সার্থে সরকার লগ ডাউন আইন চালু ও অফিস আদালত বন্ধ অবস্থায় আমাদের উক্ত সম্পত্তিতে কেহ অবৈধ হস্তক্ষেপ্ত যেন না করে তাই সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে সরকার পক্ষে জেলা প্রশাসকগং এর নিকট আমরা বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি। এই বলে সংখ্যালঘুরা তাদরে পুকুরে পোনা মাছ অব মুক্ত করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিমল সরকার, অনিল কুমার, প্রফুল্ল চন্দ্র, মেহেদুল ইসলাম আশিক প্রমুখ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.