Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ার শিবগঞ্জে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক -১ জন

185

 

উৎপল কুমার বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় এক প্রতিবন্ধী ব্যক্তির শিশু কন্যা ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে প্রতিবেশি এক লম্পট ব্যবসায়ীকে মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করেছে।

জানা যায়, উপজেলার শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাদুল্যাপুর (চকমিলিক) গ্রামের প্রতিবন্ধী বেলাল হোসেনের মেয়ে সাদুল্যাপুর সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রী (১১) একই গ্রামের প্রতিবেশি আক্কাস আলীর ছেলে মুদি ব্যবসয়ী আজিজুল ইসলাম (৪৫) ওই শিশু টিকে তার স্ত্রী ছালমা বেগমের মাধ্যমে গত এক মাস যাবত থেকে তার বাড়িতে ডেকে সুপারি কাটা, হাত-পা টিপে নেওয়া সহ বিভিন্ন অজুহাতে নিয়ে যায়। ঘটনার দিন পুনরায় লম্পট আজিজুল কৌশলে শিশু কন্যাটিকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ওই শিশু তার পিতা-মাতাকে বিষয়টি জানালে, তার পরিবারের লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে পুলিশ লম্পট ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে শিশুটির মা রিপা বেগম বলেন, আমার মেয়েকে লম্পট আজিজুল এর স্ত্রী মাঝে মধ্যেই দোকানের সুপারি কাটা সহ বিভিন্ন কাজের অযুহাতে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। লম্পট আজিজুল আমার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। আমি এর বিচার চাই।

সরেজমিনে গেলে শিশুটির দাদী গোলাপি বেগম, দাদা জাহাঙ্গীর ইসলাম, সহ গ্রামের অনেকে বলেন ওই লম্পট মাঝে মাঝেই এ শিশু টিকে বাড়িতে ডেকে এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। তারা অভিযোগ করে আরোও বলেন, ইতিপূর্বে একই গ্রামের আহম্মদ আলীর মেয়ে ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রীকেও সে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে। উপস্থিত উক্ত গ্রামের কলেজ ছাত্রী সুমাইয়া খাতুন, রিমা আক্তার, সাদিয়া আক্তার সহ কয়েকজন শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসী এই লম্পটের বিচার চান এবং তাদের নিরাপত্তা দাবী করেন।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম বদিউজ্জামান জানান, তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আজিজুল কে আটক করা হয়েছে। শিশুর পরিবারকে জিজ্ঞেসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। সঠিক তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com