Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা প্রধান আসামী গ্রেফতার

462

এস আই শফিক বগুড়া (সদর)প্রতিনিধিঃ বগুড়ার ধরমপুরে আল ইমরান ইমন (২১) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। ৬০হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার জন্যই তাকে খুন করেছে দৃর্বৃত্তরা। এঘটনায় জড়িত প্রধান আসামী ফাউজার রহমান মৃধা নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত আল ইমরান ধরমপুর পূর্বপাড়ার মৃত মামুনুর রশীদ এর পুত্র। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩ ঘটিকায় আল ইমরান ইমন কে তার পূর্বপরিচিত ৪ জন যুবক সরকারি আজিজুল হক কলেজের কমার্স ভবনের খেলার মাঠের সামনে পাকা রাস্তার উপরে ডেকে নিয়ে গিয়ে দুই পায়ের থাইয়ের পেছনে ছুরি দিয়ে ৩ টি আঘাত করে এবং মোটর সাইকেল ক্রয় করারা জন্য তার পকেটে রাখা ৬০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে তাকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর পরই আসামীরা বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ধামকি দিতে থাকে যে, মেডিকেলে গিয়েও তারা হামলা করবে। তাদের ভয়ে পরিবারের লোকজন আল ইমরান ইমনকে বাসায় নিয়ে এসে চিকিৎসা করতে থাকে। ১৯ জুলাই সকালে তার মা এমিলি বেওয়া গিয়ে ডাকাডাকি করলে আল ইমরান কোন সারাশব্দ করে না। তখন তার চিতকারে আশেপাশের সকলে এসে দেখে ইমরান মারা গেছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা স্টেডিয়াম ফাঁড়ির এস আই জাহাঙ্গীর আলম জানান যে, অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তিনি অভিযান পরিচালনা করে মামলার ১ নং আসামী ফাউজান আহাম্মেদ মেধা (২৮), পিতাঃ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, ঠিকানাঃ জামিলনগর, বগুড়াকে গ্রেফতার করেন। মামলার অপর আসামীরা পলাতক। আমলার অপর আসামীরা হচ্ছে ২. সানি(২০), পিতাঃ আনোয়ার হোসেন, ঠিকানাঃ জামিলনগর। ৩. মোঃ জিহাদ, পিতাঃ মতি, ঠিকানাঃ জামিলনগর। ৪. লবো (২২), পিতাঃ তারুনি, ঠিকানাঃ জামিলনগর, ৫. রনি (২১), পিতাঃ লাল মিয়া, ঠিকানাঃ জামিলনগর, বগুড়া।
জাহাঙ্গীর আলম আরও জানান যে, প্রাথমিক তদন্তে ধারনা করা হচ্ছে আসামীদের ছুরিকাঘাতের ফলে ব্যাপক রক্তক্ষরণের কারনে আল ইমরানের মৃত্যু হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
সকালে সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ও সদর থানার ওসি হুমায়ন কবীর মৃত ব্যক্তির বাসায় যান এবং অতি দ্রæত আসামীদের গ্রেফতারের আস্বাস দেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com