Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ায় বান্ধবীকে আইফোন কিনে দিতে বাবার সাথে ছেলের অপহরণ নাটক।

14

 

বগুড়ার সোনাতলায় বান্ধবীকে আইফোন কিনে দেওয়ার জন্য বাবার সাথে অপহরণ নাটক করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন রাকিবুল হাসান রিয়াদ (১৯) নামের এক যুবক রিয়াদ সোনাতলা উপজেলার নামাজখালী এলাকার ওবায়দুল ইসলামের ছেলে।

এ ঘটনা সাজাতে সহযোগিতা করা রিয়াদের বন্ধু জয়পুরহাটের কালাইয়ের মোলামগাড়ি হাট এলাকার মইফুল আকন্দের ছেলে মুন্না হাসান (১৮) কে মঙ্গলবার ২৭শে জুলাই ভোররাতে দুপচাঁচিয়া এলাকা থেকে উদ্ধার করে র‍্যাব-১২ মুচলেকা নিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে র‍্যাব।

র‍্যাবের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪শে জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রিয়াদ বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় কিছুক্ষন পর থেকেই তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে রিয়াদ বাড়ীতে ফিরে না আসায় তার অভিভাবক আশে পাশেসহ বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাড়ী এবং সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজাখুঁজি করে। রিয়াদের কোনো সন্ধান না পাওয়ায় তার মাতা বগুড়া জেলার সোনাতালা থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন (সোনাতলা থানার জিডি নং-৯৫৯ তারিখ ২৫শে জুলাই ২০২১)।

পরবর্তীতে ২৬শে জুলাই সকালে রিয়াদের মোবাইল থেকে তার বাবার মোবাইলে ফোন আসে,“তোর ছেলে রিয়াদকে জীবিত উদ্ধার করতে হলে জরুরীভাবে এক লক্ষ টাকা রেডি করে জানা”, এরপর যখন পরিবার বুঝতে পারে রিয়াদ অপহৃত হয়েছে তারা দ্রুত বগুড়া র‌্যাব ক্যাম্পে এসে রিয়াদকে উদ্ধারের জন্য সহযোগিতা চায়।

ইতিমধ্যে রিয়াদকে প্রচন্ড মারপিট করা হচ্ছে বলে তার পিতা র‌্যাবকে জানায় অপহৃত রিয়াদের কান্নাকাটিতে তার বাবা-মা ভেঙ্গে পড়ে এবং মুক্তিপনের টাকা দেওয়ার জন্য রাজি হয়। এমতাবস্থায় র‌্যাবের চৌকষ টিম রিয়াদকে উদ্ধারে অভিযান শুরু করে।

অবশেষে বগুড়া ও জয়পুরহাটের বিভিন্ন স্থানে অভিযান করে অবশেষে বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া এলাকা থেকে রিয়াদ ও তার বন্ধু মুন্নাকে উদ্ধার করে র‍্যাব। র‍্যাব-১২ বগুড়ার কোম্পানী কমান্ডার(লেঃ কমান্ডার) আব্দুল্লাহ আল মামুন, (জি), বিএন জানান, উদ্ধারকৃত রিয়াদ ও মুন্নাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, রিয়াদ তার বাবার থেকে এক লাখ টাকা মুক্তিপন নেওয়ার উদ্দেশ্যে এই অপহরণ ও মারপিটের নাটক সাজিয়েছিল।

দাবীকৃত মুক্তিপনের টাকা দিয়ে রিয়াদ তার এক বান্ধবীকে একটি আইফোন উপহার দিবে বলে জানায়। তাই পরিকল্পনা মাফিক দুই বন্ধু এই নাটক সাজায় এবং মোবাইল বন্ধ করে মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে। তিনি আরও জানান, অপহৃত রিয়াদ ও তার বন্ধু মুন্নাকে উদ্ধারপূর্বক তাদের অভিভাবকদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকান্ডে নিজেদের জড়াবে না বলে মুচলেকা প্রদান করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.