Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ আবু হানিফ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

205

 

বগুড়া জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ৪টি হত্যাসহ ৯টি মামলার আসামি জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হানিফ প্রাং মিস্টারকে (৩৮) কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার (০৫ জুন) বেলা পৌনে ১২টার দিকে শহরতলীর শাকপালা মোড়ে স্থানীয় মসজিদের গেটে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত মিস্টার শাকপালা গ্রামের আরমান হোসেন ওরফে আরমান ড্রাইভারের ছেলে।
জানা গেছে, মিস্টার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে শাকপালা বাসস্ট্যান্ড বাইতুছ সালাম জামে মসজিদে নামাজ আদায়ের জন্য যাচ্ছিলেন। মসজিদের ঠিক গেটে পিছন থেকে আসা একদল যুবক কুড়াল দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মোটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মসজিদের পশ্চিম পার্শ্বে কয়েকজন যুবক মোটরসাইকেলে অপেক্ষা করছিলো। মিস্টার মসজিদে প্রবেশ করার আগেই কয়েক যুবক তাকে কুপিয়ে কুড়াল ফেলে রেখে অপেক্ষামান পালিয়ে যায়।
প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, মিস্টার ছিল এলাকার সন্ত্রাস। রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় চাঁদাবাজী, ছিনতাই, হত্যা, জমি দখল ছিল তার পেশা। একাধিকবার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেও জামিনে মুক্ত হয়ে আবারো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত পড়তো মিস্টার।তার ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খোলার সাহস পেত না। বছর খানেক আগে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নতুন কমিটিতে তাকে সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ দেয়া হয়।
বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী দৈনিক একুশে সংবাদকে বলেন, বেশ কিছুদিন মিস্টার প্রকাশ্যে আসতো না। তার নামে ৪টি হত্যাসহ চাঁদাবাজী সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ৯টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.