Ultimate magazine theme for WordPress.

বগুড়া সদরের হরিপুরে স্বামীর উপর অভিমান করে এক (সনাতন ধর্মের) গৃহ বধুর আত্ম হত্যা

130

স্টাফ রিপোর্টরঃ বগুড়া সদরের হরিপুরে স্বামীর উপর অভিমান করে সনাতন ধর্মের এক গৃহ বধুর আত্মহত্যা,
জানা গেছে সদরের গোকুল ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের শ্রী উত্তম কুমার দাসের সাথে সদরের লাহিড়ী পাড়া ইউনিয়নের মধুমাঝিড়া গ্রামের শ্রী নিখিল চন্দ্রের মেয়ে অঞ্জলি রানী দাসের গত ৮ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। তার এক বছর পরই তাদের কোল উজালা করে এক পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। বিয়ের ৪ বছর পর থেকেই স্বামী স্ত্রীর সাথে মাঝে মধ্যেই ঝগড়া বিবাদ হয়। এরই সুত্র ধরে গত ১৫ জুন স্বামীর সাথে ঝগড়া হলে সে স্বামীর উপর রাগ করে সন্ধ্যায় নিজ শয়ন ঘরের দরজা বন্ধ করে গলায় দড়ি দেয়। প্রতিবেশীরা দেখে তার ঘরের দরজা ভেংগে দ্রুত বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঐদিন রাত ১১টায় সে মারা যায়। এব্যাপারে অঞ্জলী রানীর পরিবার ও লাহিড়ীপাড়ার সাবেক ইউপি সদস্য রবীন্দ্র নাথের সাথে কথা বললে তারা জানায় উত্তম কুমার মাঝে মধ্যেই কারণে অকারণে অঞ্জলীকে নির্যাতন করত। সেই তাকে হত্যা করেছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে আমরা হত্যা মামলা করব। থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সোহেলের সাথে কথা বললে তিনি জানান লাশ সুরুতহাল করে মর্গে পাঠান হয়েছে, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গহণ করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.