Ultimate magazine theme for WordPress.

মহাস্থানে বড় ট্রাকের ভাড়া নিয়ে বিপাকে মালিক ও চালকেরা

312

গোলজার রহমান মহাস্থান(বগুড়া)প্রতিনিধিঃসরকারের নতুন আইন বাস্তবায়ন করার ফলে বগুড়ার মহাস্থানে বড় ট্রাকের ভাড়া নিয়ে বিপাকে পড়েছে মালিক ও চালকেরা। 

রবিবার মহাস্থান ফিলিং স্টেশন পাম্পে আটকে থাকা প্রায় ২০/২৬টি (১৬১৫) অর্থাৎ বড় ট্রাকের মালিক ও চালকেরা জানান, (১১০৯) ছোট মোটেল কাগজ অনুযায়ী গাড়ির ওজন সাড়ে ৩টন। নতুন আইনে গাড়ির ওজন সহ এসব গাড়িতে সর্বোচ্চ ২২টন মালামাল পরিবহন করতে বলা হয়েছে।
ছোট মডেল (১১০৯) ট্রাক ২২টন মালামাল ঠিকই বহন করছে। কিন্তু বড় মডেল (১৬১৫) খালি গাড়ির ওজন প্রায় পৌঁনে ৯টন। এতে ছোট গাড়ি থেকে বড় গাড়ির মালামাল প্রায় ৫টন কম নিতে হয়। এ ক্ষেত্রে বড় গাড়িতে মালামাল কম লোড হওয়ায় ব্যবসায়ীদের সাশ্রয় হচ্ছে না বলে তারা ছোট গাড়ি (১১০৯) করে পরিবহন কাজে ব্যবহার করছেন। এতে বড় গাড়ির চেয়ে ছোট গাড়ির চাহিদা বেশি। শুধু তাই নয়, বড় গাড়ি ও ছোট গাড়িতে মালামাল ২২টন করে থাকলেও সমান ভাড়া করে ভাড়া মারতে গেলে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল দিতে হয় বড় গাড়িকে ১৪শ টাকা। ছোট গাড়িকে ১১০০ টাকা। বড় গাড়ির তেল ও মবিল খরচও বেশি।
আবার ছোট গাড়ির চাকার মডেল ৮২৫/২০।
আর বড় গাড়ির চাকার মডেল ১০২০।
এ বিষয়ে পরিবহন মালিক ফেরদৌস আলম স্বপন পাইকাড়, পরিমল চন্দ্র, নাহিদ হাসান, শ্রীবাষ, শ্রী শিবু, ফজলার রহমান ও অাল আমিন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ায় জানান, সরকারের নতুন আইন কে সাধুবাদ জানাই। কিন্তু এই আইনকে বিবেচনা করে আরোপ করলে আমাদের পক্ষে ভাল হতো। যদি ছোট (১১০৯) ট্রাকে ১৭/১৮ টন মালামাল বহন আর বড় (১৬১৫) গাড়িতে ২২ টন মালামাল পরিহন করার আইন করা হতো তাহলে আমাদের গাতি চালাতে লোকসানে পড়তে হতো না। সরকার দ্রুত এর ব্যবস্থা না নিলে আমাদের পথে বসতে হবে বলে তারা জানিয়েছেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.