Ultimate magazine theme for WordPress.

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বগুড়ায় কৃষক লীগের বৃক্ষরোপন

183

 

বঙ্গবন্ধু কন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষকরতœ শেখ হাসিনার নির্দেশনায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে সারা দেশে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এরই ধারাবাহিতায় শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বগুড়া কলেজ মাঠে জেলা কৃষক লীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। বগুড়া জেলা কৃষক লীগের সভাপতি মো: আলমগীর বাদশার সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জুর পরিচালনায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র। এসময় তিনি তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় তৃনমূল পর্যায় থেকে শুরু করে প্রতিটি নেতাকর্মীকে নিজ নিজ বাড়ির উঠানে বা ফাঁকা জায়গায় ৩টি করে ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছ রোপন করতে হবে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায়, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় বৃক্ষরোপন অতিব জরুরী। সৃষ্টির বুকে প্রাণিকুলের বেঁচে থাকার পেছনে বৃক্ষের রয়েছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা। বৃক্ষ মূলত পরিবেশ, আবহাওয়া ও জলবায়ুর ভারসাম্য বজায় রাখে। এক কথায় প্রকৃতির অমূল্য প্রধান সম্পদ হচ্ছে বৃক্ষ। পৃথিবীকে বসবাসের উপযোগী করতে ও প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের করাল গ্রাস থেকে দেশকে রক্ষা করতে বৃক্ষরোপনের কোন বিকল্প নেই।
তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সকল সচেতন নাগরিককে বেশি বেশি করে বৃক্ষরোপন করার আহব্বান জানান। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে মরণঘাতি করোনা ভাইরাসে সারা পৃথিবী আতংকিত। বিশেষ করে বাংলাদেশে বর্তমানে করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভান দিন দিন বেড়েই চলছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংত্রমন প্রতিরোধে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি এ দেশের আবাল বৃদ্ধ বনিতার কল্যাণের জন্য অর্থাৎ করোনা মোকাবিলার জন্য যথেষ্ট সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছেন।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. উম্মে কুলছুম স্মৃতি এমপি। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সহ-সভপতি ও রাজশাহী বিভাগীয় দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা আব্দুল লতিফ তারিন। উক্ত কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি হারেজ উদ্দিন হারেজ, আবু বক্কর সিদ্দিক রাজা, ইকবাল, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুল বারী পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান মানিক, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম লিটন, সদস্য আব্দুল হাই, বজলার রহমান বকুল, জননেত্রী শেখ হাসিনা পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি সূর্য, শহর কৃষক লীগের আহবায়ক মাসুদ রানা সরকার, যুগ্ম আহবায়ক সুজাউদ্দৌলা সুজা, মাসুদ করিম, মানিক, নবীর উদ্দিন, ইউনুছ ও সাইফুল ইসলাম সহ প্রমূখ। শেষে প্রয়াত নেতা আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সহ আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী যারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে, বর্তমানে সারা বাংলাদেশে যারা করোনা ভাইরাসে আক্রন্ত হয়েছেন তাদের সুস্থতা কামনা করে ও দেশ ও জাতির কল্যান কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.