Ultimate magazine theme for WordPress.

যে পথে পাটশিল্প ধ্বংস হয়েছে, সেই পথে ট্যানারি।

394

যে পথে পাটশিল্প ধ্বংস হয়েছে, সেই পথে ট্যানারি।

অনলাইন ডেস্কঃআন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমার অজুহাতে আওয়ামী লীগের সিন্ডিকেট চামড়ার দাম নিয়ে কারসাজি করছে। এই চক্রের স্বার্থ রক্ষা করছে নিশুতি সরকার।এদের হোতা সরকারি দলের এক বড় নেতা। যেভাবে পাটশিল্প ধ্বংস হয়েছে, সেই পথেই ধ্বংস করা হচ্ছে ট্যনারি শিল্প।আজ সোমবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।রিজভী বলেন,বাণিজ্য মন্ত্রণালয় চামড়ার বর্গফুট-প্রতি একটা হাস্যকর দাম বেধে দিয়ে তাদের সহায়তা করছে। এই অল্প দামের কারণে চামড়া ব্যাপকভাবে পাচার হচ্ছে পার্শ্ববর্তী দেশে। সিন্ডিকেট করে এতিমের হক মারার এই কাণ্ডকারখানা যারা চালাচ্ছে, বছরের পর বছর ধরে তারাও নিজেদের ধার্মিক বলে প্রচার করে।বিএনপি সরকারের সময়ে যে চামড়া কয়েক হাজার টাকায় বিক্রি হতো এখন তা দুই-তিন শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন,সব জিনিসের দাম হু হু করে বাড়লেও দফায় দফায় কমতে কমতে ১০ ভাগের এক ভাগে নেমেছে কাঁচা চামড়ার দাম। নীরব প্রতিবাদ হিসেবে সিন্ডিকেটের কাছে বিক্রি না করে কোরবানির চামড়া মাটির নিচে পুঁতে রাখছেন অনেকে।তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘সুইস ব্যাংকে আর কতো টাকা পাঠানো সম্পন্ন হলে বাংলাদেশের জনগণ মুক্তি পাবে?
ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন,তিনি যখন দুর্ভোগকে স্বস্তিদায়ক আর আনন্দ যাত্রা বলছেন, তখন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রবিবার ফেসবুক পোস্টে তুলে ধরেছেন ঈদে তাঁর বাড়ি ফেরার চরম ভোগান্তির কথা।এরপরও মন্ত্রী সাফাই গাচ্ছেন নিজের সাফল্যের, এইরকম নির্লজ্জতা দেশবাসী আগে কখনও দেখেনি।খালেদা জিয়ার কারাবন্দিত্বের আজ ৫৫২তম কালিমালিপ্ত দিবস উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘গতকাল ঈদের দিন তার পরিবারের সদস্যরা সাক্ষাতের সুযোগ পেয়েছিলেন। তিনি এখন গুরুতর অসুস্থ। তাঁর জীবন এখন সংকটময় অবস্থায়। কারাগারে নেওয়ার সময় সম্পূর্ণ সুস্থ নেত্রী এখন হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠতে পারছেন না।

Leave A Reply

Your email address will not be published.