Ultimate magazine theme for WordPress.

রুদ্ধশ্বাস অভিযান শেষে গোবিন্দগঞ্জের অপহৃত ব্যক্তিকে উদ্ধার ও দুই অপহরণকারী কে আটক করেছে পুলিশ

516

গাইবান্ধা প্রতিনিধি গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশ রুদ্ধশ্বাস অভিযান শেষে অপহৃত ব্যক্তি কে উদ্ধার ও দুই অপহরণকারী আটক করেছে।
১৩ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বেলা অানুমানিক সাড়ে ১১ ঘটিকার সময় গোবিন্দগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলার মাঝামাঝি কোমরপুর বাজারে অবস্থিত এথিনা পেট্রোল পাম্প এলাকা হতে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অভিরামপুর গ্রামের সুরেন্দ্রনাথের ছেলে আদম ব্যবসায়ী পরিমল(৪৬) কে মাইক্রোবাস যোগে কৌশলে অপহরণ করে রংপুরের দিকে নিয়ে যায় অপহরণকারী একটি চক্র। এরপর অপহরণকারীরা পরিমলের ফোন ব্যবহার করে তার বৌয়ের নিকট ৭ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে।
এঘটনায় অপহৃত পরিমলের পরিবারের পক্ষ হতে বিষয়টি রাতেই গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশ কে অবহিত করলে তাৎক্ষণিক ভাবে থানা পুলিশ পরিমল কে উদ্ধারের পদক্ষেপ হিসাবে এএসপি ‘সি’ সার্কেল গাইবান্ধা এর সহায়তায় পরিমলের অবস্থান সনাক্ত করে পীরগন্জের বড়দরগা ও মিঠাপুকুর থানার বিভিন্ন এলাকায় রাতভর অভিযান চালায়। কিন্ত এ অভিযান চালিয়ে রাতে পরিমল কে উদ্ধার করা সম্ভব না হলে আজ ১৪ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ১০ টায় গোবিন্দগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে একটি দল আবারো ৩ ঘন্টা রুদ্ধশ্বাস অভিযান চালিয়ে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ থানার ছোট মির্জাপুর গ্রাম হতে অপহরণকারীকে টাকা হস্তান্তর করার সময় এঘটনার অপহরণকারী ও মাদক ব্যবসায়ী ১। সাগর ও তার সহযোগী ২। নুর আলম কে কৌশলে আটক করে এবং তাদের দেয়া তথ্য মতে একই গ্রামের শাহানুর ডাক্তারের এর পরিত্যাক্ত বাড়ি হতে অপহৃত পরিমলকে উদ্ধার করে।
এসময় অপহরণের বাকি সহযোগী ৫/৬ সদস্য পালিয়ে যায়। পুলিশের হাতে আটককৃত সাগর এলাকায় ত্রাস হিসাবে পরিচিত। সাগর আটক হবার কারনে এলাকাবাসী স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে।
এখবর নিশ্চিত করে থানা অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান জানান,এই অভিযানে গোবিন্দগঞ্জ থানার মহিলা পুলিশ সাবিনা জীবনবাজি রেখে একাই অপহরণকারী সাগর কে ধরে ফেলে। এ অপহরণের ঘটনায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা রুজু করা হয়েছে। আটক সাগরের বিরুদ্ধে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ থানায় দুটি মাদক সহ মোট ৪টি মামলা বিজ্ঞ আদালতে চলমান আছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.