Ultimate magazine theme for WordPress.

শিবগঞ্জের মাঝিহট্টের খেউনি বিন্নাচাপর গ্রামে মারপিট ও ভাংচুরের ঘটনায় মামলা দায়ের

394

নামুজা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মাঝিহট্টের খেউনি গ্রামে ড্রেন করাকে কেন্দ্র করে মারপিট ও ভাংচুরের ঘটনায় মামলা দায়ের করার সংবাদ পাওয়া গেছে। মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২ মার্চ বিকাল ৫টায় মাঝিহট্ট ইউনিয়নের খেউনি গ্রামে ড্রেন করাকে কেন্দ্র করে মারপিট ও ভাংচুরের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। বিবরণে প্রকাশ, খেউনি বিন্নাচাপর গ্রামে জনৈক আজাহারের বাড়ি সংলগ্ন রাস্তার পার্শ্বে একই গ্রামের জনৈক রফিকুল কর্তৃক ড্রেন খনন করার সময় আজাহার আলী বাধা প্রদান করে। এতে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা কাটা-কাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। উক্ত সংঘর্ষে মহিলা সহ উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়। পরবর্তীতে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন সন্ধ্যায় আবারো দফায় দফায় সংঘর্ষে ইনদাজ আলীর বসতবাড়ীতে থাকা ২টি টিভি, ফ্রিজ, দুইটি মটর সাইকেল, বিদ্যুতের মিটার, আসবাবপত্র সহ আরোও ৫টি বসতবাড়ীর আসবাবপত্র ব্যাপক ভাবে ভাংচুর করা হয়। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় গত ৪ মার্চ ইনদাজ আলী বাদী হয়ে ২৮ জনকে আসামী করে ও অজ্ঞাতনামা আরো ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে আনুমানিক প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতির দেখিয়ে মামলা দায়ের করেন। প্রতিপক্ষের মারপিটে ইনদাজ আলীর পুত্র গোলাম রব্বানী শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর আহত আবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই গ্রামের একজন সচেতন ব্যাক্তি জানান, ইতিপূর্ব থেকে গ্রামে রাজনৈতিক দলীয় কোন্দল বেশ জোরে সরে চলছিল। তারি ধারাবাহিকতায় এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে তিনি মনে করেন। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ওই গ্রামে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.