Ultimate magazine theme for WordPress.

শ্রেণী কক্ষে টিফিন খাওয়ার সময় শিবগঞ্জে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাপের দংশনে বেঁচে গেলেন স্কুল ছাত্র

409

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ার শিবগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাপের দংশনে বেঁচে গেলেন ৩য় শ্রেণির ছাত্র নাহিদ।

জানা গেছে গত সোমবার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় তলায় দুপুরে শ্রেণী কক্ষে টিফিন খাওয়ার সময় ৩য় শ্রেণীর ছাত্র রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের মাছুদ ইসলামের ছেলে নাহিদ ইসলাম(১০) তার পায়ের সেন্ডেল ডান হাত দিয়ে নিতে গেলে একটি বিষাক্ত সাপ তার ডান হাতে কামড় দিলে সে অসুস্থ্য হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীরা এগিয়ে এসে তাৎক্ষনিক ভাবে প্রথমে শিবগঞ্জ হাসপাতালে ও পরে বগুড়া শজিমেকে ভর্তি করে দেয়। এ ঘটনা গোটা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বিদ্যালয়ে সাপ আতংকের সৃষ্টি হয়। পরে কর্তৃপক্ষ সাপ ধরার জন্য ওঝাকে ডেকে নিয়ে আসেন, ২য় তলায় সাপের কোন সন্ধান না পেয়ে কিছু পর বিদ্যালয়ের সামনে ১টি সাপ ধরে মেরে ফেলা হয়। গতকাল সরেজমিনে বিদ্যালয়ে গেলে উপস্থিত ৩য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছাবিনা ইয়াসমিন, ময়নুল ইসলাম, মহাইমিনুল বলেন, আমরা সাপ দেখেছি কিন্তু ভয়ে মারতে পারিনী। এব্যাপারে নাহিদ এর মা কুইন খাতুন বলেন, আল্লাহতায়া আমার ছেলেকে বেঁচে রেখেছেন সঠিক সময় সু-চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে ছেলেটি প্রাণে রক্ষা পেয়েছে। বর্তমানে ছেলেকে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী বাড়িতে বিশ্রামে রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোছাঃ নাজনিন বানু বলেন, সাপ ধরার জন্য ওঝাকে নিয়ে এসে বিদ্যালয়ের মাঠে ১টি সাপ ধরে মেরে ফেলা হয়েছে। এই বিদ্যালয়টি দীর্ঘদিন যাবত জড়াজীর্ণ অবস্থায় থাকার কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। তিনি অবিলম্বে বিদ্যালয়ের ভেঙ্গে যাওয়া দরজা-জানালা, প্ল্যাস্টার খুলে ক্ষত-বিক্ষত হওয়া সহ জরুরী মেরামতের কথা উল্লেখ করেছেন। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম কবীর বলেন, বিদ্যালয়ের সংস্কার করার জন্য চলতি অর্থ বছরে তালিকা প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে অত্র বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাপের আতংক বিরাজ করছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.