Ultimate magazine theme for WordPress.

সাজাপ্রাপ্ত শিশুদের মুক্তির নির্দেশ হাইকোর্টের

420

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দিয়ে টঙ্গী ও যশোর সংশোধনাগারে বন্দি সকল শিশুকে অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এছাড়া অন্য আদালতের মাধ্যমে সাজা দেওয়া শিশুদের ৬ মাসের জামিন দেওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. মাহমুদুর হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ এই আদেশ দেন।

এ আদেশে ১২১ শিশু মুক্তি পাবে বলে জানা গেছে। এছাড়া অন্য আদালতের মাধ্যমে সাজা দেওয়া শিশুদের ৬ মাসের জামিন দেওয়া হয়েছে একই আদেশে।

বিবিসি বাংলা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই শিশুদের আটকের পর বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) ভ্রাম্যমাণ আদালত সাজা দিয়েছিল। এরপর এই শিশুদের গাজীপুর এবং যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে রাখা হয়েছিল।

একজন আইনজীবী জানিয়েছেন, ‘আদালত এই শিশুদের মুক্তির নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত কোনো শিশুকে সাজা দিতে পারে না। শিশুরা অপরাধ করলে শিশু আদালত তার বিচার করবে। আদালত এটাও উল্লেখ করেছেন যে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের কোন শিশুকে আটক করে রাখার এখতিয়ার নেই।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.