Ultimate magazine theme for WordPress.

সৈয়দ আহম্মদ কলেজে সুবর্নজয়ন্তী ও পুনর্মিলনী উৎসব বর্তমান সরকার বছরের প্রথম দিনে বই বিতরণ করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে –ডাঃ দীপু মনি

501

মুহাম্মাদ আবু মুসা:গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, শেখ হাসিনা সরকার বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যপুস্তক তুলে দিয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। এই সরকার উন্নয়ন উৎপাদনের সরকার। খাদ্য ঘাটতির দেশকে খাদ্যে উদ্বৃত্তের দেশে পরিনত করেছে। এছাড়াও বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধান, সমুদ্র বন্দর জয়, আকাশ পথ জয় এবং বাংলাদেশের অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করে বিশ্বের দরবারে শেখ হাসিনা সরকার নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, ১০বছর আগে বাংলাদেশের অবস্থান কি ছিল? বর্তমানে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট কেমন হয়েছে তা আপনারা বিচার করুন। উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আগামীতে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, সৈয়দ আহম্মদ কলেজটি নিঃসন্দেহে একটি ভালো কলেজ। বগুড়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেশি। আবার ফলাফলে বগুড়ার অবস্থান ভালো। বগুড়ায় শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধিতে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আরও সচেতন হতে হবে। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, দেশে নারী শিক্ষা প্রসারে যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সরকার মেয়েদের ডিগ্রী পর্যন্ত অবৈতনিক শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছে। তিনি বলেন, একদিন বগুড়া আওয়ামী লীগের ঘাটিতে পরিনত হবে। গতকাল শনিবার বগুড়া গাবতলীর সুখানপুকুরস্থ সৈয়দ আহম্মদ কলেজে ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে সুবর্নজয়ন্তী ও পুনর্মিলনী উৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি ও গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ রওনক জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ সাইদুজ্জামান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বগুড়া-৭ নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু, জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ, বগুড়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ মকবুল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, গাবতলী উপজেলা চেয়ারম্যান রফি নেওয়াজ খান রবিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুস সালাম ভুলন, অত্র কলেজের উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ নজবুল হক, প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার ও সুবর্নজয়ন্তী অনুষ্ঠানের আহবায়ক মোঃ নজরুল ইসলাম, কলেজের ইসলামী ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মুন্জুরে আলম রাসেল প্রমুখ। শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক এমপি বেগম কামরুন নাহার পুতুল, টিএমএসএস’র নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপিকা ড. হোসনে আরা বেগম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বগুড়া সদর সার্কেল) সনাতন চক্রবতী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াসমিন, থানার ওসি সাবের রেজা আহম্মেদ, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মুঞ্জুরুল হক মুঞ্জু, গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বাবু ধন্য গোপাল সিংহ, ইঞ্জিনিয়ার মেজবাউল হক জুলু, জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশিষ পোদ্দার লিটন, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ডাবলুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও কর্মকর্তাগণ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উক্ত কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ঢাকা ব্যাংক বগুড়া শাখার ম্যানেজার ফারুক আহম্মেদ ও রাসেল আহম্মেদ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.