Ultimate magazine theme for WordPress.

২০ জোড়া শিক্ষার্থী আটক বগুড়ার বিভিন্ন ফাস্টফুডের দোকান থেকে।

1,539

বগুড়ায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পালিয়ে ফাস্ট ফুড ও চায়নিজ রেস্তোরা থেকে আপত্তিকর অবস্থায় ৪০ শিক্ষার্থীকে জুটিকে আট করে জেলা প্রশাসক। তাকে সহযোগিতা করে আর্মস পুলিশ ব্যাটিলিয়নের সদস্যরা। পরে তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এসব শিক্ষার্থীর বেশির ভাগই স্কুল পর্যায়ের। এরা বগুড়া শহরের নামিদামী স্কুল কলেজে পড়াশুনা করে।
বগুড়া শহরে বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসন এক অভিযান চালিয়ে ৪০ জন কিশোর-কিশোরী ও তরুণ-তরুণীকে আটক করে পরে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
জেলা প্রশাসন এইসব শিক্ষার্থীদের অভিভাকগনকে ডেকে তাদের হাতে সন্তানদের তুলে দেন এবং সন্তানদের প্রতি দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান। উল্লেখ্য বগুড়া নগরী ও শহরতলিতে কিছুদিন ধরেই ফাস্ট-ফুডের কয়েকটি দোকান ও চায়নিজ রেস্তারায় কপোত কপোতিদের অবৈধ মেলামেশা চলছিল। অভিযোগ পাওয়া যায় অর্থের বিনিময়ে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ওইসব চায়নিজ রেস্তোরা ও ফাস্টফুড কর্তৃপক্ষ কপোত কপোতিদের নিরাপদ কেবিনের ব্যবস্থা করে দেয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মমতাজ মহলের নেতৃত্বে আর্মস পুলিশ ব্যাটিলিয়নের সদস্যরা নগরীর টাইমকার্ট, জলেশ্বড়ীতলা
টেন-ইলেভেন, অনিয়ন, সরকারি আজিজুল হক কলেজের এলাকার হোটেল হেভেন ফোর্টে অভিযান চালায়। সেখানে স্কুল ও কলেজ ড্রেস পড়া ২০ জন ছেলে ও ২০জন মেয়েকে ওইসব স্থানে থাকার কারণ জিজ্ঞাসা করে সদুত্তর দিতে না পারলে আটক করে জেলা প্রশাসন অফিস সম্মেলন কক্ষে আনা হয়। তারপর তাদের অভিভাবকগনেকে ফোনে ডেকে নিয়ে আটককৃতদের মুক্তি দেওয়া হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.